প্রয়োজনীয় কিছু ঔষধ রাখুন সবসময় আপনার নাগালের ভিতরে

Published Date: Friday, December 6, 2019

আমাদের পৃথিবীতে এখন প্রচুর পরিমাণের ব্যাধির আক্রমণ হয়েছে এবং এসব ব্যাধির থেকে মুক্তির জন্য নিত্যনতুন ঔষধ আবিষ্কার হচ্ছে। বাংলাদেশে যে পরিমান ফরমালিন এবং ভেজাল যুক্ত খাবার আমরা গ্রহণ করে থাকি তার ফলে হুটহাট অসুস্থ হওয়াটা স্বাভাবিক। এই হুটহাট অসুস্থ হলে আমাদের নিজেদের কিছু তৎক্ষনাৎ প্রাথমিক চিকিৎসার প্রয়োজন হয়, যা আমরা নিজেরাই করতে পারি। তেমনি কয়েকটি ঔষধ রাখুন সবসময় আপনার নাগালের ভিতরে। চলুন দেখে নেই ঔষধ গুলোর নাম ও কার্যক্রম কি।

(১) নাপা
(২)নাপাডল
(৩)এইচ প্লাস
(৪)এ্যামডিক্স
(৫)ওরাস্যালাইন
(৬)ফ্লাজিল
(৭)ম্যাক্সপ্রো
(৮)স্যাভলন
(৯)গজ,ব্যান্ডেজ, তুলা
(১০) স্যাভলন ক্রিম
(১১) নিডোগার্ড স্প্রে
(১২)বেনাটেন বার্ন ক্রিম
(১৩) ইটোরিক্স ৬০ এমজি
(১৪)টাফনিল।

এবার দেখে নিব কোন ঔষদের কাজ কি:
(১) নাপাঃ জ্বর, গায়ে ব্যাথা এসব এর জন্য আপনি নাপা সেবন করতে পারেন তবে সেবনের আগে খাবার খেয়ে নিতে হবে এবং খাবারের ১৫ মিনিট পূবে গ্যাসের ঔষধ খেতে হবে।
(২) নাপাডলঃ শরীরের কোথাও তীব্র ব্যাথা অনুভুত হলপ নাপাডল খেতে পারেন সেক্ষেত্রে ভরাপেট গ্যাসের ঔষধ সেবন করার পর।
(৩) এইচ প্লাসঃ জ্বর মাথা ব্যাথা হলে প্রাথমিক চিকিৎসা হিসেবে এটা নিতে পারেন তবে সেবনের আগে খাবার খেয়ে নিতে হবে এবং খাবারের ১৫ মিনিট পূবে গ্যাসের ঔষধ খেতে হবে।
(৪) এ্যামডিক্সঃ পেট খারাপ হলে এটা খেতে পারেন। এতে ডাইরিয়া ভাল হয়।ভরা পেটে সেবন করতে হবে।
(৫) ওরাস্যালাইনঃ পানিশূন্যতা,ডাইরিয়া, লো প্রেসার এর জন্য ওরাস্যালাইন সেবন করতে পারেন এতে উপকৃত হবেন।
(৬) ফ্লাজিলঃ আমাশয়,পেটের ব্যাথা, টয়লেট এর সমস্যা র জন্য ফ্লাজিক খুবই উপকারী। ভরা পেটে সেবন করতে হয়।
(৭) ম্যাক্সপ্রোঃ গ্যাসের সমস্যা বুক জালা পোড়া গলা জালা বমিভাব টকভাব মুখের ভেতর তেঁতো হয়ে গেলে ম্যাক্সপ্রো খাবার খাওয়ার ১৫ মিনিট আগে সেবন করলে উপসম পাবেন।

Women’s Children & General Hospital Ltd Doctor Serial Number

(৮) স্যাভলনঃ হাতের কাছে সবসময় স্যাভলন এন্টিস্যাপটিকটা রাখলে ভাল হয় এতে আপনার প্রাথমিক চিকিৎসা হিসেবে ব্যাবহার করতে সুবিধা হয়। স্যাভলন সকল প্রকার কাটা ছেরাতে ব্যাবহার করা যায়।
(১০) গজ,ব্যান্ডেজ,তুলাঃ সবসময় ঘরে বা হাতের নাগালে গজ, ব্যান্ডেজ, তুলা এগুলা রাখুন যে কোন কাটা, পোড়া, ছেরার ক্ষেত্রে এগুলা সুবিধা জনক প্রাথমিক চিকিৎসা সরঞ্জাম।
(১১) স্যাভলন ক্রিমঃ সকল প্রকার কাটা, ছেরা স্থানের জন্য স্যাভলন ক্রিম উপকারী।
(১২) নিডোগার্ড স্প্রেঃ অনেক সময় হার্ডের রুগিদের বুকে প্রচুর ব্যাথা অনুভুত হয় তখন যদি নিডোগার্ড স্প্রেটা করা হয় তবে রোগি কিছু টা ভাল অনুভব করবেন।
(১৩) Bepanthen Burn cream: এটা সকল প্রকার প্রাথমিক পোড়া জায়গায় দিলে উপকৃতি হতে পারেন তবে সবসময় চিকিৎসক এর পরামর্শ অনুযায়ী ঔষধ এবং এন্টিসেপ্টিক ব্যাবহার করা উত্তম।
(১৪) Etorix 60mg: আক্কেল দাঁতের ব্যাথার জন্য এই ঔষধ সেবন করা যায় তবে সেবনের আগে খাবার খেয়ে নিতে হবে এবং খাবারের ১৫ মিনিট পূবে গ্যাসের ঔষধ খেতে হবে।
(১৫) টাফনিলঃ প্রচন্ড পরিমান মাথার ব্যাথা হলে টাফনিল খেতে পারেন তবে সেবনের আগে খাবার খেয়ে নিতে হবে এবং খাবারের ১৫ মিনিট পূবে গ্যাসের ঔষধ খেতে হবে।

সকল প্রকার ঔষধ ডাক্তার এর পরামর্শ অনুযায়ী সেবন করা উচিৎ। আপনার কোন ঔষধ এ এ্যালার্জি থাকতে পারে আপনি গর্ভবতী হতে পারেন সে সব ক্ষেত্রে অবশ্যই চিকিৎসা এর পরামর্শ অনুযায়ী ঔষধ সেবন করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Recent Posts

Popular posts:

google ad

Calender

July 2020
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031