ঊচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে মাত্র ৬ টি কারণে মাল্টা হতে পারে আপনার স্বপ্নের ঠিকানা

Published Date: Monday, September 9, 2019

মাল্টা বিশ্বের ছোট দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি দেশ। ভুমধ্যসাগরের দ্বীপপুঞ্জে অবস্থিত দেশটি। মাল্টার পূর্বে তিয়োনিসিয়ার দূরত্ব ২৪৮ কিলোমিটার, ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণে ইতালি, উত্তরে লিবিয়া দুরত্ব ৩৩৩ কিলোমিটার। ভুমধ্যসাগরে অবস্থান গত কারণে মাল্টার ঐতিহাসিক এবং কৌশলগত দিক অপরিসীম। মাল্টার আয়তন ৩১৬ বর্গকিলোমিটার। পাঁচটি দ্বীপ নিয়ে গঠিত ৪ লক্ষ জনসংখ্যার বসবাস মাল্টাতে। তিনটি বড় দ্বীপ এর মধ্যে -মাল্টা ,গোজো এবং কমিনোতেই জনবসতি আছে।

মাল্টাতে বসবাসের অনমুতি পাওয়া খুব সহজ। তাই অভিবাসীরা সহজই দক্ষিণ ইউরোপের এই দেশটিতে প্রবেশ করে। সৌন্দর্যের লীলাভূমি ক্ষেত মাল্টাতে নিরাপত্তা এবং সুরক্ষা ব্যবস্থা বেশ উন্নত। মাল্টার রাজধানী ভ্যালেটটা ২০১৮ সালের শীর্ষ দর্শনীয় স্থানের মধ্যে নির্বাচিত হয়েছে। আয়তনে ছোট হলেও মাল্টা সংস্কৃত এবং ইতিহাস এ সমৃদ্ধ একটি দেশ। এছাড়া মাল্টা পর্যটনের জন্য বিশেষ ভাবে সমাদ্রিত। মাল্টার উষ্ণ আবহাওয়া,অসাধারণ স্থাপনা,অসাধারণ স্থাপত্যকলা এবং ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্য সমূহ এবং বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা থাকার কারণে এটি পযটকদের জন্য খুবই আকর্ষণীয় স্থান হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। অর্থনৈতিক দিকে থেকে ও মালটা খুবই একটি সমৃদ্ধশালী দেশ। মাল্টার প্রধান রপ্তানি যোগ্য পণ্য হচ্ছে তুলা এবং তামাক। ইউরোপের অনন্য দেশের তুলনায় মাল্টার লেখাপড়া এবং থাকা খাওয়ার খরচ তুলনামুলুক কম। তাই কম খরচে উন্নতমানের শিক্ষা গ্রহণের ক্ষেত্রে মাল্টা খুবই জনপ্রিয়ও হয়ে উঠেছে বিদেশী শিক্ষার্থীদের কাছে।মাল্টার সরকারি ভাষা হলো মাল্টিজ এবং ইংরেজি। মাল্টার পড়াশুনার মাধ্যম ইংরেজি। মাল্টায় শতকরা ৮০ ভাগ মানূষ ইংরেজি ভাষায় কথা বলে ,বাকি ২০ ভাগ ইতালি এবং ফরাসি ভাষায় কথা বলে। তাই আপনি যে দেশের নাগরিক এ হন না কেন সজজে যে কারো সাথে মনের ভাব বিনিময় করতে পারবেন। ইউরোপের অন্যান্ন দেশের মতো মাল্টাতে অনার্স কোর্স ,মাস্টার্স এবং পিএইচডির কোর্স রয়েছে। এখানে অনার্স কোর্স তিন থেকে চার বছর মেয়াদি ,মাস্টার্স কোর্স এক থেকে দুই বছর ,পিএইচডি কোর্স তিন থেকে চার বছর মেয়াদি হয়। এছাড়াও এখানে রয়েছে শর্ট এবং ডিপ্লোমা কোর্স।

মাল্টার কয়েকটি উল্লেখযোগ্য বিশ্ববিদ্যালয় হলো
১) ইউনিভার্সিটি অব মাল্টা
২) আমেরিকান ইউনিভার্সিটি অব মালটা
৩) ইনিষ্টিটিউট অব ট্যুরিজম স্টাডিজ অব মাল্টা
৪) মাল্টা কলেজ অব আর্ট সাইন্স এন্ড টেকনোলজি

যে বিষয় পড়ানো হয় :
ম্যানেজমেন্ট
আিইন
মিডিয়া স্টাডিজ
মিউজিক
হেলথ সাইন্স
এভিয়েশন
একাউন্টেন্সি
মেডিসিন এন্ড সার্জারী
আর্টস
সমাজবিজ্ঞান
ইতিহাস
দর্শন
ভূগোল
ইঞ্জিনিয়ারিং
এরোস্পেস টেকনোলজি
এইচআরএম
ইত্যাদি সহ আরও অনেক বিষয়ে পড়ালেখা করার সুযোগ রয়েছে।

Malta Natural scnery

১) শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নতঃ
মাল্টায় রয়েছে আকর্ষণীয় শিক্ষা ব্যবস্থা এবং আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন ডিগ্রি গ্রহণের সুযোগ। মাল্টার রাজধানী ভ্যালেটর এর চারপাশে বেশিরভাগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অবস্থিত। মাল্টায় প্রায় আটটির বেশি পাবলিক এবং প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় আছে। প্রতি বছর হাজার হাজার শিক্ষাথী মাল্টায় এসে পড়াশোনা করে। ইউনিভার্সিটি অব মাল্টা, মাল্টার সবচেয়ে বড় সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। সর্বমোট ১১,০০০ জন শিক্ষাথী রয়েছে এখানে তার মধ্যে প্রায় ৭০০ জন বিদেশি শিক্ষার্থী রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ১৯৫২ সালে। এটি মাল্টার প্রাচীন এবং স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়। মাল্টার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রয়েছে সাংস্কুতিক ক্লাব। যে কেউ চাইলেই যুক্ত হতে পারে সেখানে।

২) কাজের সুবিধাঃ বিদেশে শিক্ষার্থীদের জন্য সপ্তাহে ২০ ঘন্টা কাজের অনুমতি রয়েছে মাল্টাতে। গ্রীষ্মকালীন সময়ে বিশ্ববিদ্যালয় ৩ মাস বন্ধ থাকে তখন ফুলটাইম কাজের সুযোগ রয়েছে।

৩) আবাসনর সুবিধাঃ শিক্ষার্থীদের জন্য মাল্টার আলাদা হোস্টেল ব্যবস্থা রয়েছে। নয় হাজার থেকে বিশ হাজার টাকার মধ্যে উন্নত মানের হোস্টেল গুলোতে ভাড়া। এছাড়া কেউ চাইলে ফ্ল্যাট বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতে পারে। বাসার আয়তন এবং অবস্থান এর উপর বাসা ভাড়া নির্ধারণ হয়ে থাকে। বাসা ভাড়া সর্বনিম্ন বিশ হাজার টাকা থেকে শুরু করে পঞ্চাশ হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

৪) মাল্টার আবহাওয়াঃ
মাল্টার আবহাওয়া দক্ষিন ইতালি গ্রিসসহ দক্ষিণ জুড়ে একইরকম। আবহাওয়া সাধারণত গ্রীষ্ম এবং গরম কালে শুস্ক থাকে। ইউরোপের অনন্যা দেশের তুলনায় মাল্টায় শীত কম পরে এবং সেটা সময়কাল খুবই সংক্ষিপ্ত। মাল্টা বাতাসের বেগ শক্তিশালী কিন্তু আবহাওয়া বেশ স্থিতিশীল। বিদেশী শিক্ষার্থীরা তাই সহজে খাপ খাইয়ে নিতে পারে।

৫) নিরাপদ দেশঃ
সম্প্রতি ব্যক্তি নিরাপত্তা ও সুরক্ষা বিষয়ে নেটওয়ার্ক ইন্টারন্যাশন্স নাম একটি প্রতিষ্ঠান প্রবাসীদের নিয়ে জরিপ পরিচালনা করেছে। জরিপে ১৫১ টি দেশে বসবাসরত ১৭৪ জনগোষ্ঠির ১৪ হাজার ৩০০ জন এর মধ্যে বিভিন্ন প্রশ্ন করা হয়। একটি প্রশ্ন ছিল “ব্যক্তিগত ও আর্থিক নিরাপত্তা ও সুরক্ষার ক্ষত্রে কোন দেশকে তারা নিরাপদ মনে করেন” জরিপের ফলাফল অনুসারে এই তালিকায় মাল্টা পাঁচ নাম্বার এ অবস্থান করছে।

৬) ভ্রমনের সুযোগঃ
ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যভুক্ত দেশে ২০০৪ মাল্টা যুক্ত হয়। আপনি ইউরোপোর ২৮টির বেশি দেশে স্বল্প খরচ এ ভ্রমণ করতে পারবেন শুধু মাল্টাতে পড়াশোনার সুবাধে। মাল্টা থেকে মাত্র কয়েক ঘন্টা দুরুত্বে রোম, বার্সেলোনা, প্যারিস, মাদ্রিদ, ইস্তানবুল, এথেন্স এর মতো গুরুত্তপূর্ণ শহর। চাইলেই বন্ধুদের নিয়ে ঘুরে আসতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Popular posts:

google ad

Calender

September 2020
M T W T F S S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930